এবার কোমর পানিতে জুমার নামাজ আদায় করলেন মুসল্লিরা!

নামাজ হল ইসলাম ধর্মের প্রধান উপাসনাকর্ম। প্রতিদিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা প্রত্যেক মুসলিমের জন্য ফরজ। ঈমান বা বিশ্বাসের পর নামাজই ইসলামের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ। একজন মুসলমান হিসেবে আমাদের প্রত্যকেরই নামাজ আদায় করা উচিৎ। তাতে আসুক যত বাধা-বিপত্তি।

নতুন খবর হচ্ছে, ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে প্রায় এক মাস আগে বাঁধ ভাঙায় সাতক্ষীরার আশাশুনির প্রতাপনগরে প্রতিদিনই ঢুকছে জোয়ারের পানি। যেন নদীর মধ্যে বসবাস করছে এ এলাকার মানুষ। চারদিকে পানি আর পানি। কোথাও কোনও শুকনো জায়গা নেই। সেজন্য বাধ্য হয়ে শুক্রবার (২৫ জুন) আবারও কোমর পানিতে দাঁড়িয়ে জুমার নামাজ আদায় করেছেন প্রতাপনগরের মুসল্লিরা। এদিকে পূজা-অর্চনাও করতে পারছেন না হিন্দু সম্প্রদায়ের অধিবাসীরা।

প্রতাপনগরের মোতোয়াল্লি গাজী বাড়ি জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ বাবুল হোসেন বলেন, আমরা যে কী অবস্থার মধ্যে আছি, কেউ না দেখলে বিশ্বাস করবে না। চারদিকে পানি আর পানি। কেউ মারা গেলে কবর দেওয়ার জায়গা পর্যন্ত নেই। কোমর পানিতে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়তে বাধ্য হচ্ছি। এ সপ্তাহের জুমার নামাজও পানির মধ্যে পড়তে হয়েছে।

তিনি বলেন, নদী আর জনপদ মিলেমিশে একাকার হয়ে আছে। খোলপেটুয়া নদীর লবণাক্ত পানি বয়ে চলেছে প্রতাপনগরের জনপদে। এক কথায় পানিতে ভাসছে এলাকার বাসিন্দা মিলন বিশ্বাস বলেন, ইয়াসের একমাস হলো। সবাই শুধু এসে দেখে প্রতিশ্রুতি দিয়ে যায়। কিন্তু বাস্তবে কিছু দেখি না। এই ইউনিয়নে প্রায় ৩৬ হাজার মানুষের বসবাস।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*