এটা বাংলাদেশ না যে সবসময় স্পিন দিয়ে কাজ চালাবেন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই পেসারের সঙ্গে তিন স্পিনার নিয়ে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে বরাবরই এমনটা করে থাকে টাইগাররা। তিনজন বিশেষজ্ঞ স্পিনার খেললেও পুরো ম্যাচ জুড়ে মোট ৫জন স্পিনার ব্যবহার করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এমন কাণ্ড দেখে পাকিস্তানের এ স্পোর্টসে ম্যাচ পরবর্তী অনুষ্ঠানে বিশ্লেষণ করতে গিয়ে মিসবাহ উল হক মন্তব্য করেছেন, এটা বাংলাদেশ নয় যে সবসময় স্পিনার দিয়ে চালিয়ে দেবেন।

উপমহাদেশের কন্ডিশন বরবারই স্পিনারদের সহায়তা করে থেকে। গত কয়েক বছরে পশ্চিমা দেশগুলোকে হারানোর কৌশল হিসেবে স্পিনবান্ধব উইকেটের সহায়তা নিয়েছে বাংলাদেশ। সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজেও মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উইকেট ছিল স্লো এবং টার্নিং।

পুরো সিরিজের প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই দুই পেসারের সঙ্গে তিনজন স্পিনার খেলিয়েছিল বাংলাদেশ। সংযুক্ত আরব আমিরাতের অন্যান্য ভেন্যুর উইকেটের তুলনায় শারজাহর উইকেটে রান খানিকটা কম হয়। মিরপুরেও প্রায়শই এমন চিত্র দেখা যায়। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের আগের দিন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোও জানিয়েছিলেন, শারজাহতে মিরপুরের ছায়া দেখছেন তিনি।

সেই ভাবনা থেকেই হয়তো দুই পেসারের সঙ্গে তিন স্পিনার খেলিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের এমন পরিকল্পনার সমালোচনা করেছেন মিসবাহ। পাকিস্তানের সাবেক এই কোচ মনে করেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে খেলতে হলে অবশ্যই তিন পেসার নিয়ে খেলতে হবে।

এ প্রসঙ্গে মিসবাহ বলেন, ‘সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৩ ভেন্যুর যেখানেই খেলেন না কেনো আপনাকে অন্তত ৩ ফাস্ট বোলার খেলাতে হবে। হ্যা, স্পিনার খেলবে, মাঝে কিছু ওভার করবে। এটা বাংলাদেশ না যে আপনি শুরুতে, শেষে সবসময় স্পিন দিয়ে কাজ চালাবেন। শেষের দিকে স্পিনার বল করলে মার খেতে হবে।’

একই অনুষ্ঠানে বিশ্লেষক হিসেবে ছিলেন ওয়াসিম আকরাম। ঘরের মাঠে বরাবরই স্পিনবান্ধব উইকেটে খেলার কারণে বাংলাদেশের মানসিকতাটাই স্পিন নির্ভর হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। যার কারণে হিসেবে পাকিস্তানের কিংবদন্তি এই পেসার জানিয়েছেন যে, শুধু ওয়ানডে কিংবা টেস্টে নয় ঘরোয়া ক্রিকেটেও বিশাল টার্নিং উইকেটে বানিয়ে খেলে বাংলাদেশ।

ওয়াসিম আকরাম বলেন, ‘বাংলাদেশ দলের মাইন্ডসেটই এমন হয়ে গেছে বাংলাদেশে খেলে খেলে। ওখানে বিশাল টার্নিং উইকেট বানিয়ে দেয়। সেটা ওয়ানডে হোক, টেস্ট হোক, ডোমেস্টিক হোক। স্পিনেই ভরসা করে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*