একের পর এক উইকেট হারিয়ে চাপে ইন্ডিয়া

আনন্দবার্তা স্পোর্টস ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে মাঠে নেমেছে দুই এশিয়ান জায়ান্ট ভারত ও পাকিস্তান। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই দুরন্ত ইয়র্কারে কেএ রাহুলকে বোল্ড করে দেন শাহিন আফ্রিদি। এদিন রাহুল ৮ বল খেলে মাত্র ৩ রান করেন।

এর আগে, শাহিন শাহ আফ্রিদির ওপেনিং ওভারের চতুর্থ বলে এলবিডব্লিউ হয়ে শূন্য রানে বিদায় নেয় রোহিত শর্মা। দুবাইয়ের পিচ থেকে শুরুর দিকে জোরে বোলাররা অতিরিক্ত সুইং পান। তাকেই কাজে লাগাচ্ছেন শাহিন আফ্রিদি। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত স্কোর ভারত: ৫২/৩ ( ৯ ওভার )

লিটন দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার: মুশফিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারের মুখ দেখেছে বাংলাদেশ দল। শারজায় টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে ১৭১ রান বোর্ডে তুলেও জয়ের দেখা পায়নি টাইগাররা। লঙ্কান দুই ব্যাটসম্যান রাজাপাকসা ও আশালাঙ্কার ঝড়ে উড়ে গেছে টাইগার বোলিং লাইনআপ। অবশ্য এই দুইজন তাদের ইনিংসের জন্য ধন্যবাদ দিতেই পারেন টাইগার ওপেনার লিটন দাসকে। কারণ দুইজনই জীবন পেয়েছেন তার হাত থেকে।

রাজাপাকশা ও আশালাঙ্কার দুজনের ক্যাচই মিস করেছেন লিটন দাস। এই দুইজনের ক্যাচ ধরতে পারলে হয়তো বদলে যেতো পুরো ম্যাচের চিত্র। টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও তাই মনে করেন। এই সুযোগগুলোকে কাজে লাগাতে না পারায় হারের মুখ দেখতে হয়েছে তার দলকে।

এদিকে ম্যাচ হারের জন্য লিটনের ওই দুই ক্যাচ মিসকে দায়ী করতে নারাজ মুশফিক। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মুশফিকুর রহিমের কাছে জানতে চাওয়া হয় লিটন দাসের ওই দুইটি ক্যাচ মিস প্রসঙ্গে। মুশফিক যেনো লিটনের পাশেই দাড়ালেন। মুশফিকের ভাষ্যমতে, বাংলাদেশের দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার লিটন। ম্যাচ হারের জন্য আমি ওকে দায়ী করবো না। এসব টুর্নামেন্টে আমাদের ছোটোখাটো কিছু ভুল থাকেই। তবে হ্যা, ওই ক্যাচ দুইটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ তারা উইকেটে সেট হয়েছিল। আর ওই সময়টা খুব কঠিন মুহুর্তে ছিল।

শারজাহর এই উইকেট আগের ম্যাচগুলোর উইকেটের মতো মনে হয়নি মুশফিকের। তিনি বলেন, সচারচর শারজায় যেটা হয় ১৪০-১৫০ খুব ভালো সংগ্রহ থাকে, কিন্তু আজকে আমার ব্যাটিং করে যেটা মনে হয়েছে এটা তেমন উইকেট না। ১৭০ রান ভালো সংগ্রহ ছিল কিন্তু ম্যাচ উইনিং টার্গেট ছিল না। আমরা জানতাম আমাদেরকে কয়েকটি সুযোগ ভালোভাবে কাজে লাগাতে হবে। আমরা সেটা করতে পারিনি, কিছু ছোটখাটো ভুল করেছি। এজন্যই হয়তো ম্যাচটা হেরেছি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*