একদিনে তিন হ্যাটট্রিক দেখল ক্রিকেট বিশ্ব

ইংল্যান্ডের ভাইটালিটি টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে একই দিনে তিনটি হ্যাটট্রিক দেখলো ক্রিকেট বিশ্ব। শুক্রবার (২ জুলাই) ভিন্ন ভিন্ন ম্যাচে হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন ইয়র্কশায়ারের লকি ফার্গুসন, কেন্টের অ্যাডাম মিলনে ও মিডলসেক্সের ব্লেক কালেন।

ফার্গুসন হেডিংলিতে, মিলনে ক্যান্টাবুরিতে আর টনটনে হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন কালেন। যা কিনা তাঁদের তিনজনেরই প্রথম হ্যাটট্রিক। ১৮১ রান তাড়া করার ম্যাচে জিততে শেষ ওভারে ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রয়োজন ছিল ২০ রান। সেই সময় ফার্গুসনের হাতে বল তুলে দেন ইয়র্কশায়ারের অধিনায়ক অ্যাডাম লিথ।

একটি নো বলসহ প্রথম তিন বলে এক চারে দেন ১০ রান। তাতে শেষ তিন বলে ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রয়োজন ছিল ১০ রান। শেষের তিন বলে তিন ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে ইয়র্কশায়ারকে ৯ রানের জয় এনে দেন ফার্গুসন। নিউজিল্যান্ডের ডানহাতি এই পেসারের হ্যাটট্রিকের শুরুটা হয়েছিল লুক ওয়েলসকে দিয়ে।

লিথের হাতে দারুণ এক ক্যাচ বানিয়ে ওয়েলসকে ফেরান ফার্গুসন। পরের বলে দুর্দান্ত এক ইয়র্কারে লুক উডকে বোল্ড আউট করেন ডানহাতি এই পেসার। শেষ বলে টম হার্টলিকে লিথের হাতে ক্যাচ বানিয়ে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ফার্গুসন। এদিন ২৪ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

ক্যান্টাবুরিতে হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের আরেক পেসার মিলনে। ডানহাতি এই কিউই পেসারও হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন ইনিংসের শেষ ওভারে। ১৯২ রান তাড়া করার ম্যাচে জিততে শেষ ওভারে সারের ১৮ রান প্রয়োজন ছিল।

যেখানে মাত্র ৬ রান দিয়ে তিন উইকেট তুলে নিয়ে কেন্টকে ১১ রানের জয় এনে দেন মিলনে। প্রথম তিন বলে ৬ রান দেয়া মিলনে শেষ তিন বলে তুলে নেন অলি পোপ, কাইল জেমিসন ও লরি ইভান্সের উইকেট। এদিন ৩৮ রানে ৪ উইকেট পেয়েছেন মিলনে।

টনটনে দুই ওভার মিলে হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন কালেন। সমারসেটের বিপক্ষে ইনিংসের ১৪তম ও ১৮তম ওভার মিলে হ্যাটট্রিক করেন তিনি। যেখানে চতুর্দশ ওভারেরে শেষ বলে লুইস গোল্ডসওর্দিকে ফেরান ১৯ বছর বয়সি এই পেসার।

এরপর ১৮তম ওভারে প্রথম দুই বলে বেন গ্রিন ও মার্শান্ট ডি লাঞ্জকে ফিরিয়েছেন তিনি। তিনজনকেই ক্যাচ আউট করেছেন কালেন। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ৫ রানের জয় পেয়েছে সমারসেট। আর বল হাতে ৩২ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন কালেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*