এই বিপদে সাকিবের পাশে দাড়ালেন ১ জন

র্ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) পুরো মৌসুম খেলতে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। সময়ের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারের এমন সিদ্ধান্তে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন দেশের প্রতি তাঁর নিবেদন নিয়ে, বইছে সমালোচনার ঝড়ও। মূলত দেশের খারাপ সময়ে না খেলে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটকে প্রাধান্য দেয়ায় এমন আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে।

সাকিবের এমন সিদ্ধান্তের প্রকাশ্য সমালোচনা করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। যদিও সাকিবের নেওয়া সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানাচ্ছেন প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।সম্প্রতি ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ডমিঙ্গো জানিয়েছেন, কে কোথায় খেলবেন এটা একান্তই ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তবে সাকিবকে সবসময়ই দলে চান তিনি।

ডোমিঙ্গো জানান, ‘কোচ হিসেবে আমি সবসময় সাকিবকে দলে পেতে চাইবো। তবে অন্যদিকে, যদি খেলোয়াড় সম্পূর্ণভাবে এর ভেতরে না থাকে এবং ক্যারিয়ারের এমন পর্যায়ে এসে অন্য কোথাও সুযোগ থাকে- তাহলে তার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মন্তব্য করা কঠিন। আমি মনে করি, এই সিদ্ধান্তটা তাকে নিতেই হতো। সে বিভিন্ন মহল থেকে মতামত নিতে পারে, তবে এটা একান্তই সাকিবের সিদ্ধান্ত।

কোচ হিসেবে আমি তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। এটা তার ক্যারিয়ার এবং জীবিকা নির্বাহের উপায়, তাই এই বিষয়ে মতামত জানানোর মতো আমরা কেউ নই। আধুনিক ক্রিকেটে কাউকে জোর করে খেলানোর সুযোগ নেই বলে মনে করেন ডোমিঙ্গো। তাঁর ধারণা, কে কোন ফরম্যাট খেলবে সেই আলোচনা চালিয়ে যাওয়া দরকার। আর এই ব্যাপারে বোর্ড বা ক্রিকেটারের নেওয়া যেকোনো সিদ্ধান্তকে সকলের সম্মান জানানো উচিত।

ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমি জানি, বাংলাদেশের হয়ে খেলার সময় সে সম্পূর্ণ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকে। কোন কোন ফরম্যাটে সাকিব খেলবে, সেই আলোচনা আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া দরকার। যেভাবে ক্রিকেট এখন চলছে, কাউকে এখন জোর করে খেলানোর সুযোগ নেই। বোর্ড এবং ক্রিকেটাররা যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেই সিদ্ধান্তকে আমাদের সম্মান জানাতে হবে।’

১৮ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) আইপিএলের এবারের আসরের নিলাম থেকে দল পেয়েছেন সাকিব। ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে তাঁকে দলে ভিড়িয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। শ্রীলঙ্কা সফর ছাড়াও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেখা যাবে না তাঁকে। মূলত সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতেই কিউইদের বিপক্ষে সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন তিনি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *