উইকেট সংগ্রাহকের দিক থেকে ২য় স্থানে মুস্তাফিজ

ছোট পুঁজি নিয়ে লড়াইয়ে পথ দেখাতে প্রথম ওভারেই মুস্তাফিজুর রহমানের হাতে বল তুলে দিয়েছিল রাজস্থান। কিন্তু নিদারুণভাবে ব্যর্থ হন বাঁহাতি পেসার।অন্য বোলাররাও পারেননি তেমন কিছু করতে। খুনে ব্যাটিংয়ে রাজস্থান রয়্যালসকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার মুম্বাইয়ের বিপক্ষে ২ ওভার ২ বল করে ৩২ রান দিয়ে এক উইকেট নেন মুস্তাফিজ। হজম করেন ২ ছক্কা ও ৩ চার।ব্যাটিংয়ে পুরোপুরি ব্যর্থ ছিল রাজস্থান। ত্রিশ পার করতে পারেননি দলের কেউ। ২০ ওভার খেলে দলটি করতে পারে কেবল ৯০ রান।

ইশান কিষানের ঝড়ো ফিফটিতে ৮ উইকেটে জিতে যায় মুম্বাই। ১২০ বলের ইনিংসে তখনও বাকি ছিল ৭০ বল!স্বল্প রানের পুঁজি নিয়ে রাজস্থানের বোলিং শুরু করেন মুস্তাফিজ। কিন্তু প্রথম ওভারেই বাংলাদেশ পেসার দিয়ে বসেন ১৪ রান।

তার প্রথম দুই বলে কোনো রান নিতে পারেননি রোহিত শর্মা। তৃতীয় বলটি ছিল স্লোয়ার, কাট শটে কাভার-পয়েন্ট দিয়ে মারেন চার। পরের বল থেকে আসে ২ রান।পঞ্চম বলটিও স্লোয়ার, স্লটে পড়া বল বোলারের মাথার ওপর দিয়ে ছক্কায় ওড়ান মুম্বাই অধিনায়ক। শেষ বল থেকে আসে আরও ২ রান।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে মুস্তাফিজকে আনা হয় আবার। এবার অবশ্য দলকে একটি উইকেট এনে দেন তিনি। তার কাটারে বল আকাশে তুলে দিয়ে মিড অফে ধরা পড়েন সূর্যকুমার যাদব।আর এই উইকেটের মধ্য দিয়ে মুস্তাফিজ আইপিএল ১৪ আসরে বিদেশি বোলারদের মধ্যে উইকেট সংগ্রাহকের দিক থেকে যৌথভাবে ২য় স্থানে উঠে আসে।

প্রথম স্থানে ১৫ উইকেট নিয়ে অবস্থান করছেন রশিদ খান এবং ১৪ উইকেট নিয়ে যৌথ ভাবে ২য় স্থানে আছেন মুস্তাফিজ ও ক্রিস মরিস।নবম ওভারে যখন আক্রমণে আসেন মুস্তাফিজ, জয় থেকে ৭ রান দূরে মুম্বাই। তাকে পরপর দুই বলে চার ও ছক্কা মেরে দ্রুত ম্যাচ শেষ করে দেন কিষান।

মুস্তাফিজের শর্ট অব লেংথের বলটি পুল করে মিড উইকেট দিয়ে বাউন্ডারির বাইরে আছড়ে ফেলে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান ২৫ বলে পূর্ণ করেন ফিফটি। ৩ ছক্কা ও ৫ চারে সাজান ৫০ রানের ইনিংসটি।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা রাজস্থানের রানের খাতায় কিছুটা অবদান রাখেন মুস্তাফিজও। ইনিংসে শেষ ওভারের পঞ্চম বলে ট্রেন্ট বোল্টকে লং অফ দিয়ে ছক্কায় ওড়ান তিনি। ৭ বলে করেন অপরাজিত ৮ রান।এই হারের পর শেষ চারে থাকার আশা অনেকটাই শেষ রাজস্থানের।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*