ইসরায়েলজুড়ে স’হিংস’তার আশঙ্কা !

ইস’রায়ে’লে অ’বসান হচ্ছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর শাসনামল। ক্ষমতার পালা’বদল সামনে রেখে দেশটিতে স’হিং’সতার আ’শঙ্কা প্রকাশ করে বিরল এক সতর্কতা জারি করেছে অভ্যন্তরীণ নি’রাপত্তা সংস্থা। সিন বেট নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধান নাদাভ আরগামান কোনও নাম উল্লেখ না করে শনিবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘সম্প্রতি আমরা অ’তিস’হিং’স ও উস’কানিমূ’লক পরিস্থিতি তৈরির লক্ষণ দেখতে পেয়েছি, বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

‘এ প্রবণতা নির্দিষ্ট কিছু গোষ্ঠী বা ব্যক্তিকে এমনভাবে প্রভাবিত করতে পারে যে তারা স’হিং’স হয়ে উঠ’তে পারে এবং বেআ’ইনি কিছু করে বসতে পারে, যা হয়ত শা’রী’রি’ক হা’ম’লা পর্যন্ত গড়াতে পারে।’ খবর রয়টার্সের ইস’রায়ে’লের পার্লামেন্টে এ সপ্তাহেই নতুন সরকার গঠিত হতে পারে, যার মধ্য দিয়ে আব’সান হতে পারে প্র’ধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর শাসনের, যিনি রেকর্ড এক যুগ ধরে ক্ষমতায়।

ইস’রায়ে’লে গত ২৩ মার্চের জাতীয় নির্বাচনে কোনও দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় অচ’লাব’স্থার সৃষ্টি হয়। প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু সরকার গঠনে প্রয়োজনীয় সমর্থন অর্জনে ব্যর্থ হলে সুযোগ পান পার্লামেন্টের বিরোধী দলীয় নেতা ইয়া’য়ের লাপিদ। গত বুধবার তিনি ঘোষণা দেন, একটি জোট সরকার গঠনের প্রয়োজনীয় সমর্থন জোটাতে পেরেছেন তিনি।

নতুন সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে যার নাম সংবাদমাধ্যমে এসেছে; ক’ট্টরপ’ন্থি ইয়া’মিনা দলের নেতা সেই নাফতালি বেনেটের প্রতি কিছু ডানপন্থি গোষ্ঠী দারুণ ক্ষুব্ধ, কারণ তিনি মধ্যপন্থি লা’পিদের সঙ্গে জোট করেছেন। এর জেরে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক পো’স্টে বেনেটকে আ’ক্রম’ণ করা হচ্ছে।

কেননা, নির্বাচনের আগে বেনেট প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি মধ্যপন্থি লাপিদ, অথবা কোনো আরব দলের জোটে যোগ দেবেন না। এখন লাপিদের নতুন জোটে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর বেনেটের নিরাপত্তা জোরদার করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

এদিকে ডানপন্থিরা লা’পিদের সমর্থকদের বাসার সামনে বি’ক্ষো’ভ করেছে, যাতে তারা সরকারে যো’গদান থেকে বিরত থাকেন। এ পরিস্থিতিতে উস’কানি’মূলক বক্তব্য ও পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আরগামান।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*