ইমরান খানের নাম থেকে বাদ দেয়া হলো প্রধানমন্ত্রী

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের বিষয়ে আলোচনায় সোমবার পর্যন্ত পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির অধিবেশন স্থগিত করা হয়েছে। এদিকে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নাম থেকে প্রধানমন্ত্রী শব্দ বাদ দেয়া হয়েছে। ইমরান খানের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে অনাস্থা প্রস্তাবে ভোট দেওয়ার জন্য, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ইউটিউব চ্যানেলের নাম পরিবর্তন করে ‘ইমরান খান’ রাখে। খবর জিইও টিভি।

ইমরান খানের ইউটিউব চ্যানেলটি ভেরিফাইড হওয়াতে তার নামের সামনে একটি টিক চিহ্ন ছিল। কিন্তু নাম পরিবর্তন করার সঙ্গে সঙ্গে সেটি আর নেই। ইউটিউবের নিয়ম অনুযায়ী, কোনো চ্যানেলের নাম পরিবর্তন করার পর সেটির ভেরিফায়েড টিক পরিবর্তন করা হয়। ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার এক বছর পর তার নামে ইউটিউব চ্যানেলটি তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

মূলত প্রধানমন্ত্রী যাবতীয় কার্যক্রম মানুষের সামনে তুলে ধরতে এ চ্যানেল খোলা হয়। ইউটিউব থেকে কী কারণে ইমরান খানের নাম থেকে প্রধানমন্ত্রী শব্দটি বাদ দেওয়া হয়েছে তার কারণ জানতে জিইও টিভির পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে পাকিস্তান সরকারের ডিজিটাল মিডিয়া উইং ইমরান গাজ্জালি বলেন, তিনি শুধু টুইটার এবং ফেসবুক অ্যাকাউন্ট পরিচালনার দায়িত্বে আছেন। ইউটিউব চ্যানেল তিনি পরিচালনা করেন না।

তবে ডিজিটাল মিডিয়াতে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ফোকাল পারসন ড. আরসলান খালিদ ইন্ডিপেনডেন্ট উর্দুকে বলেন, তিনি পিটিআই-এর সোশ্যাল মিডিয়া প্রধান জিবরান ইলিয়াসের সাথে কথা বলেছেন এবং তিনি তাকে জানিয়েছেন যে তিনি শুধু চ্যানেলের নাম পরিবর্তন করেছেন, ইউআরএল নয়।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*