ইতিহাস গড়া পাঁচ জুটির দুইটিই আফিফ-মিরাজের

লোয়ার মিডল অর্ডারে বাংলাদেশ দলকে এখন নিয়মিত নির্ভরতা দিয়ে যাচ্ছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব এবং মেহেদি হাসান মিরাজ। দুজনেই বয়সে তরুণ, কিন্তু দলের মহাবিপদে দায়িত্ব নিয়ে খেলতে জুড়ি নেই। আজ রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ ৭ উইকেটে হেরে গেলেও আফিফ-মিরাজের পারফর্মেন্স সবার নজর কেড়েছে।

৩৬ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর দল যখন মহাবিপদে, তখন মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে জুটি বাঁধেন আফিফ। তবে মাহমুদউল্লাহ বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি। এরপর মেহেদি মিরাজকে নিয়ে ৭ম উইকেটে উপহার দেন ৮৬ রানের জুটি। যাতে ভর করে বাংলাদেশের স্কোর ১৯৪ পর্যন্ত গেছে। বাংলাদেশের ক্রিকেটে সপ্তম উইকেটে সেরা পাঁচ জুটিতে এটি আছে পাঁচ নম্বরে। এই পজিশনে সেরা জুটিটাও আফিফ-মিরাজের।

এই তো গত মাসেই চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তারা অবিচ্ছিন্ন ১৭৪* রানের জুটি উপহার দেন। সেদিনও ২৮ রানে ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের! ৪৫ রানে পড়েছিল ৬ উইকেট। ৫০ ওভারের ফরম্যাটে আফিফ-মিরাজের তিনটি জুটিই পঞ্চাশ ছাড়িয়েছে।

৫৮ রানের আরেকটি জুটি তারা গড়েছিল গত বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ৭ নম্বর পজিশনে দ্বিতীয় সেরা জুটি ইমরুল কায়েস আর সাইফউদ্দিনের (১২৭)। তিনে আছে মুশফিক-নাঈমের ১০১ এবং চারে আছে ২০০৬ সালে কেনিয়ার বিপক্ষে অলক কাপালি আর খালেদ মাসুদের ৮৯ রানের জুটি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*