আসিফ পাকিস্তানের নতুন আফ্রিদি

পাকিস্তানের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে আজমল অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার। মারকুটে ব্যাটিংয়ের জন্য ক্যারিয়ারের সূচনালগ্ন থেকেই প্রশংসিত ছিলেন শহীদ আফ্রিদি।

পাওয়ার হিটিং দিয়ে সেই সময় ক্রিকেট বিশ্বের জন্য নজর কেড়েছিলেন পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক। আফগানিস্তানের বিপক্ষে এক ওভারে চারটি ছক্কা মেরে দলকে জেতানোর পর আসিফ আলিকে পাকিস্তানের নতুন আফ্রিদি হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন সাঈদ আজমল।

আসিফকে বিশ্বকাপ দলে নেয়ার পর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নির্বাচক প্যানেলকে সমালোচনায় ভাসিয়েছিলেন বেশ কয়েকজন সাবেক ক্রিকেটার ও সমর্থকরা। যদিও সমালোচকদের ভূল প্রমাণ করতে সময় নেননি আসিফ।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শোয়েব মালিকের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ জুটির গড়ার সঙ্গে দারুণ এক ক্যামিও ইনিংস খেলে পাকিস্তানকে জয় এনে দিয়েছিলেন ডানহাতি এই ব্যাটার। আফগানিস্তানের বিপক্ষে কোনঠাসা ম্যাচে ৭ বেল ২৫ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন তিনি।

ইনিংসের ১৮তম ওভারেও ম্যাচে ছিল আফগানিস্তান। ম্যাচ জিততে শেষ দুই ওভারে ২৪ রান প্রয়োজন ছিল পাকিস্তানের। এমন সময় করিম জানাতের ওভারে চারটি ছক্কা মেরে পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে জয় এনে দেন আসিফ। এমন ক্যামিও ইনিংস খেলার পরই আসিফকে প্রশংসা ভাসিয়েছেন আজমল।

এ প্রসঙ্গে পাকিস্তানের সাবেক এই স্পিনার বলেন, ‘আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের সময় আসিফ আলি শহীদ আফ্রিদি এবং আব্দুল রাজ্জাকের মতো ঝলক দেখিয়েছে। অনেকদিন পর শহীদ আফ্রিদির মতো করে কাউকে ছক্কা মারতে দেখেছি। সে সত্যিই ভালো খেলেছে। আমি আশা করি পরের ম্যাচগুলোতে সে এই ফর্ম বজায় রাখবে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*