‘আর্জেন্টিনার কাপ জিততে হলে ব্রাজিল ও রেফারিদের হারাতে হবে’

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ফাইনালের আগুনে কি ঘি ঢাললেন হোসে লুই চিলাভার্ট! মারাকানার ফাইনালে নামার পর লিওনেল মেসিদের তিনি এই বলে সতর্ক করছেন যে ‘এ ম্যাচে শুধু ব্রাজিলকে হারালেই হবে না, হারাতে হবে নেইমার, ভিএআর আর রেফারিকেও।’ আর্জেন্টিনার একটি রেডিওতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্যারাগুয়ের সাবেক তারকা গোলরক্ষক স্পষ্টই বলেছেন, ‘কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে সন্দেহ হলেই রেফারি সুবিধা দেবে স্বাগতিকদের।

স্বাগতিক ব্রাজিলকে সুবিধা দেওয়া নিয়ে এর আগে কোপায় একচোট বিষোদগার করেছেন খোদ মেসি। তাতে তাঁকে নিষিদ্ধও হতে হয়েছে। সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। এবার ফাইনালে দেখা ঠিক হয়ে যাওয়ার পর চিলাভার্ট সেই মেসিকেই কি না আবার নতুন করে তাতিয়ে দিলেন। তবে এই কোপায় যে আর্জেন্টিনা তারকার সাফল্য চান তিনি সেটিও বলেছেন খোলাখুলি, ‘আমি তো চাই মেসি তিন-চারবার বেরিয়ে যাক, গোল করুক তিন-চারটা।

চিলাভার্টের এই চাওয়ার সঙ্গে বিশ্বের অর্ধেক ফুটবলপ্রেমীর যদি মিল থাকে, তবে ধরেই নেওয়া যায় বাকি অংশ হলুদ জার্সিতে নেইমারের তেমনই সাফল্য চাইবে। কোপার ফাইনালে সুপার ক্লাসিকো ঘিরে পরিষ্কার দুই ভাগেই বিভক্ত এখন ফুটবলপ্রেমীরা। তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগের জন্য এর চেয়ে ভালো ম্যাচ আর কী হতে পারে। সেটা এই মুহূর্তে বুঝতে পারছে কোপার আয়োজক দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশনও (কনমেবল)। টুর্নামেন্টটি এ পর্যন্ত দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হয়ে এলেও মারাকানায় কিছু দর্শককে রাখা যায় কি না সেই চিন্তাই চলছে এখন।

যত দূর জানা গেছে, স্টেডিয়ামের ধারণক্ষমতার ১০ শতাংশ দর্শক এদিন মাঠে ঢুকতে পারেন। মারাকানার বর্তমান ধারণক্ষমতা প্রায় ৮০ হাজার। সে হিসাবে আট হাজার দর্শক হয়তো মাঠে থাকবেন। তবে কোনো টিকিট বিক্রি হবে না তার জন্য। যেমন পরিকল্পনা, তাতে পৃষ্ঠপোষকদের অর্ধেক এবং বাকি অর্ধেক টিকিট দেওয়া হবে দুই দেশের ফুটবল ফেডারেশনকে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার স্বপ্নের ফাইনাল হতে যাচ্ছে এটি। দুই দলই অপরাজিত থেকে ফাইনালে উঠে এসেছে। গ্রুপে চার ম্যাচে দুই দলেরই তিনটি করে জয় ও একটি করে ড্র। আকাশি-সাদা জার্সিতে মেসি আছেন স্বরূপে। টুর্নামেন্টে এর মধ্যেই চার গোল করে ফেলেছেন। ঠিক তেমনি ব্রাজিল দলের প্রাণভোমরা হয়েই খেলছেন নেইমার।

Sharing is caring!