আরো শক্তিশালী হচ্ছে রুশ সেনাবাহিনী!

অত্যাধুনিক আকা’শ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৫০০ এবং আরো অন্যান্য আধুনিক যু’দ্ধা’স্ত্র পেতে যাচ্ছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নিজেই এ ঘোষণা দিয়েছেন। এর ফলে রুশ বাহিনী আরো শক্তিশালী হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, শিগগিরই অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৫০০ এবং আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষে’পণা’স্ত্র ‘সারমাত’ তার দেশের সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ছাড়া যু’দ্ধ’জাহাজে স্থাপনযোগ্য শব্দের চেয়ে দ্রুত গ’তিসম্পন্ন ক্ষে’পণা’স্ত্র ‘তেস’রিকুন’ হস্তান্তরের কথাও জানান পুতিন।

রাজধানী মস্কোয় রাশিয়ার মিলিটারি একাডেমিগুলো থেকে পাস আউট হওয়া তরুণ সেনা ক্যাডেটদের সঙ্গে এক বৈঠকে গতকাল সোমবার এসব কথা জানান রুশ প্রেসিডেন্ট। এ সময় ২০৩৪ সালের মধ্যে দেশটির সেনাবাহিনীকে সর্বাধুনিক সমরা’স্ত্রে সু’সজ্জিত করার দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনাও তুলে ধরে তিনি। তরুণ এসব সামরিক ক্যা’ডেটদের উদ্দেশে ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা সক্ষমতাকে আরো শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এসব পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

এসব সমরাস্ত্র আপনাদের হাতেই তুলে দেওয়া হবে। পার্সটুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১০ টন ওজনের সামরিক ওয়ারহেড বহন করে ঘণ্টায় ১১ হাজার কিলোমিটার গতিতে লক্ষ্যপানে ছুটতে পারে রাশিয়ার আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষে’পণা’স্ত্র ‘সারমাত’। রাশিয়া প্রায় ৩ বছর আগে এই ক্ষে’প’ণা’স্ত্রের প্রথম পরীক্ষা চালিয়েছি।

অন্যদিকে, ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য এস-৫০০ আকাশ প্র’তিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ ব্যবস্থার নতুন সংস্করণ। এটিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্যাট্রিয়ট ব্যবস্থা তথা এফ-৩৫ এর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এ ছাড়া তেসরিকুন ক্ষে’পণা’স্ত্রটি শব্দের চেয়ে ৮ গুণ বেশি গতিসম্পন্ন। গত বছর রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এর পরীক্ষা চালানোর পর জানায় যে, এটি বিমানবাহী র’ণতরী বি’ধ্ব’স্ত করতে সিদ্ধহস্ত।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*