আফ্রিদির মতো করে ভারতকে ধসিয়ে দিতে চান বোল্ট

আনন্দবার্তা স্পোর্টস ডেস্ক: ভারত-নিউজিল্যান্ড খেলা মানেই টানটান উত্তেজনা। খেলার মাঠে কোন দলই হার মেনে নিতে চায়না। তবে শেষ হাসি হাঁসতে হয় যে কোন এক দলকেই এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপের ধস নামিয়েছিলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি।

ইনিংসের শুরুতেই লোকেশ রাহুল ও রোহিত শর্মাকে ফিরিয়ে ভারতকে কোণঠাসা করে পাকিস্তানের জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন তিনি। রোববার (৩১ আগস্ট) নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। ম্যাচটিতে আফ্রিদির মতো ভারতের ব্যাটিং লাইনআপের ধস নামাতে চান ট্রেন্ট বোল্ট।

গত ২৪ অক্টোবর উপমহাদেশের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে আফ্রিদির বোলিং তোপের মুখে পড়ে ভারত। পাওয়ার প্লে-তে দলীয় ৬ রানের মধ্যেই রাহুল ও রোহিতের উইকেট তুলে নেন আফ্রিদি। ইনিংসের শেষের দিকে ৪৯ বলে ৫৭ রান করা বিরাট কোহলিকেও সাজঘরে ফেরত পাঠান তিনি।

তাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫১ রানের বেশি করতে পারেনি ভারত। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় তুলে নেয় পাকিস্তান। তাই শুরুর দিকে ভারতের উইকেট তুলে নিতে পারলে নিজেদের ভালো সুযোগ দেখছেন বোল্ট। তবে রোহিত-রাহুল-কোহলিদের মতো বিশ্বমানের ব্যাটারদের বিপক্ষে নিখুঁত বোলিং করতে হবে তেমনটিও মানছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে বোল্ট বলেন, ‘আমার মনে পড়ে শাহীন যেভাবে বোলিং করেছিল তা বিস্ময়কর। কিন্তু ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপে কিছু আশ্চর্যজনক ব্যাটসম্যান আছে। আমাদের বোলিং ইউনিটের লক্ষ্য থাকবে শুরুর দিকে তাদের উইকেট নেয়া। আমরা যখন বল ফেলব তখন তা দারুণ ও নির্ভুল হতে হবে। আমার দৃষ্টিকোণ থেকে আশা করছি, শাহীন সেদিন রাতে করেছিল আমি তা করতে পারব, হয়ত বিষয়টি আমার পক্ষেও কাজ করবে।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে জয়ের পরিসংখ্যানে এগিয়ে রয়েছে নিউজিল্যান্ড। ২০০৭ ও ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়েছিল তারা। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ম্যাচেও নিজেদের পরিকল্পনা সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে চান বোল্ট।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*