আফ্রিকার জয়ে টিকে রইল বাংলাদেশের সেমিফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন

আজ ডেভিড মিলার ও কাগিসো রাবাদার শেষ মুহুর্তের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে টানা ২য় জয় পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। টানটান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে তারা হারিয়েছে ৪ উইকেটে। বিফলে যায় ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার হ্যাটট্রিক। প্রোটিয়াদের এই জয়ে কাগজে কলমে এখনও টিকে আছে বাংলাদেশের সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন।

এর আগে টসে জিতে লঙ্কানদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা। নাম্বার ওয়ান টি-টোয়েন্টি বোলার শামসি তার ফর্ম বজায় রেখেছেন। তার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সাথে প্রিটোরিয়াস ও আনরিখ নরকিয়ার কার্যকরী পেসে শ্রীলঙ্কা ১৪২ রানে সব কয়টি উইকেট হারায়। লঙ্কানদের পক্ষে ব্যাট হাতে একাই লড়েন ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা।

দলের অর্ধেকের বেশি রান তার দখলে (৭২)।এদিকে শামসি ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রানে ৩ উইকেট নেন। এছাড়া প্রিটোরিয়াস ৩টি ও নরকিয়া ২ উইকেট নেন। ১৪৩ রানের টার্গেটে প্রোটিয়ারা খেলতে নামলে টপ অর্ডারের কেউই নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি।

এদিন বাভুমা চারে নেমে দলীয় সর্বোচ্চ ৪৬ রান করে ম্যাচের লাগাম নিজেদের হাতে রাখেন।এরপর মাঝে চমকটা আনেন হাসারাঙ্গা। পরপর ৩ বলে দুই সেট ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করাম, বাভুমার সাথে প্রিটোরিয়াসকে আউট করে শ্রীলঙ্কাকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন। তবে শেষ খেলাটা খেলেন মিলার ও রাবাদা।

ম্যাচের ১৯ তম ওভারে রাবাদার ছয়ের পর শেষ ওভারে পরপর দুই বলে দুই ছক্কায় ম্যাচ নিজেদের করে নেন মিলার। ১ বল বাকি রেখে জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। মিলার ১৩ বলে ২৩ এবং রাবাদা ৭ বলে ১৩ রানে অপরাজিত থাকেন। এদিকে লঙ্কানদের পক্ষে হাসারাঙ্গা ৩টি এবং দুশমান্থ চামিরা ২ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরার পুরস্কার বর্তায় শামসির দখলে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*