আদালতে মুফতি বশির উল্লাহর স্বীকারোক্তি, দিলেন চাঞ্চল্যকর তথ্য!

নারায়ণগঞ্জে তা’ণ্ড’বের ঘ’টনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন জেলা হেফাজতের সাধারণ সম্পাদক মো. মুফতি বশিরুল্লাহ। বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলার পিবিআই কর্মকর্তারা অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ বদিউজ্জামানের আ’দালতে তাকে হাজির করলে এ জ’বানব’ন্দি দেন মুফতি বশিরুল্লাহ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআইয়ের নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. মনিরুল ইসলাম।

আ’দালত ও মা’ম’লা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৮ মার্চ এজাহার নামীয় ২৮ জন আসামী সহ অজ্ঞাত ৪০০/৫০০ জন বিএনপি, জামায়াত, শি’বি’র, হে’ফাজত কর্মীসহ আরো অনেক উশৃঙ্খল হা’ম’লাকা’রী সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সাইনবোর্ডস্থ চৌরঙ্গী পে’ট্রো’ল পা’ম্প হতে মৌচা’ক পর্যন্ত মহাসড়ক এলাকায় হ’রতাল ও অব’রোধ পালন করে। এ সময় উত্তেজিত আ’সা’মিরা একে অ’পরের স’হায়তায় জন নিরাপত্তা বিঘ্ন করার উদ্দেশ্যে যানবাহনে অ’গ্নিসং’যোগ এবং ভা’ঙচু’র করে।

এ বিষয়ে ২৯ মার্চ সিদ্ধিরগঞ্জ থা’নায় একাধিক মা’ম’লা দায়ের করা হয়। পরে মা’ম’লার তদ’ন্ত ভার দেওয়া হয় নারায়ণগঞ্জ জেলা পিবিআইকে। তারা এ বিষয়ে অধিক গুরু’ত্ব দিয়ে প্রকাশ্য ও গোপনে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মা’ম’লাটি তদন্ত করেন। পরে গতকাল (২৩ জুন) পিবিআই মুফতি বশিরুল্লাহকে ২ দিনের পুলিশ হে’ফাজতে আনার পর আজ তাকে আ’দালতে তোলা হয় এবং তিনি তা’ণ্ড’বের কথা স্বীকার করেন।

এ সময় মুফতি বশিরুল্লাহ উক্ত হর’তালে তা’ণ্ড’ব পরিচালনাকারী উল্লেখযোগ্য কেন্দ্রীয় নে’তাসহ স্থানীয় অন্যান্য নেতাদের নাম প্রকাশ করেন। পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম জানান, তদ’ন্তের স্বার্থে নাম গোপন রেখে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। পিবিআইয়ের নিকট তিনি আরো কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রদান করেন যা যাচাই-বাছাই অব্যাহত আছে। সম্পৃক্ত অন্যান্য আ’সা’মিদের গ্রে’প্তারের লক্ষ্যে অভি’যান চলমান রয়েছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*