আঘাত হেনেছে বছরের শক্তিশালী ভূমিকম্প!

চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় কিংঘাই প্রদেশে শুক্রবার ৭ দশমিক ৩ মাত্রার একটি ভূ’মিক’ম্প আ’ঘা’ত হে’নে’ছে। এতে এখন পর্যন্ত কোনো হ’তা’হ’তের খবর পাওয়া যায়নি। উদ্ধারকর্মীরা খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘট’নাস্থলে ছু’টে গেছেন। খবর আনাদোলুর।

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, ভূ’মিক’ম্পে বেশ কয়েকটি ভ’বন ধ’সে প’ড়েছে। এতে কেউ হ’তাহ’ত হয়েছে কি-না তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, ভূ’মিক’ম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল চীনের মাদুই জেলার ভূগর্ভের ১০ কিলোমিটার গভীরে।

এর আগে শুক্রবার ভোরে চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ৬ দশমিক ১ মাত্রার আরেকটি ভূমি’কম্প আ’ঘা’ত হা’নে। এতে একজন নি’হ’ত এবং ৬ জন আ’হ’ত হ’য়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

আরো পড়ুন: পবিত্র কোরআন হচ্ছে মুমিনের গাইডলাইন:কোরআনের প্রতি আমাদের প্রথম কর্তব্য হচ্ছে বিশুদ্ধভাবে এর তেলাওয়াত করা। কোরআন হচ্ছে মুমিনের সংবিধান, জীবন পরিচালনার গাইডলাইন। নবী করীম (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি কোরআনের একটি হরফ পাঠ করে, তাকে একটি নেকি প্রদান করা হয়। আর প্রতিটি নেকি দশটি নেকির সমান।

রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, কোরআন কিয়ামতের দিন বলবে, হে আমার রব, আমার অধ্যয়নরত থাকায় রাতের ঘুম থেকে আমি তাকে বিরত রেখেছি। তাই তার ব্যাপারে তুমি আমার সুপারিশ কবুল করো। তিনি (সা.) বলেন, অতপর উভয়ের সুপারিশই কবুল করা হবে। (মুসনাদ আহমাদ, হাদিস নং-৬৬২৬)।

কোরআন নির্দেশিত পথে জীবন যাপন করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য অপরিহার্য। এর মধ্যেই রয়েছে পার্থিব জীবনের শান্তি, সমৃদ্ধি এবং পরকালীন জীবনের মুক্তি। আল্লাহ তায়ালা বলেন, তোমাদের প্রতি তোমাদের রবের পক্ষ থেকে যা নাজিল করা হয়েছে,

তা অনুসরণ কর এবং তাকে ছাড়া অন্য অভিভাবকদের অনুসরণ করো না। (সূরা আরাফ, আয়াত নং-৩)। কোরআন তেলাওয়াত আল্লাহর অনুগ্রহ লাভ ও আত্মিক প্রশান্তি অর্জনের অন্যতম মাধ্যম। মহান আল্লাহ পবিত্র রমজানে আমাদেরকে অধিক পরিমাণে কোরআন তেলাওয়াত করার তৌফিক দান করুন। আমীন!

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*