অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র ৪টি টি-টোয়েন্টি টাইগারদের!

টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ কম খেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ১৬ বছরের টি-টোয়েন্টির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোটে ৪টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর এই ফরম্যাটে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

এর আগে যে চারটি টি-টোয়েন্টি খেলেছে তার সবগুলোই বিশ্বকাপে। এবারই টি-টোয়েন্টি প্রথম দ্বিপাক্ষিক সিরিজে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। ২০০৫ সালে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে দিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির যাত্রা শুরু। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দারুণ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শর্টার ফরম্যাট।

কিন্তু, অবাক ব্যাপার হলো, টেস্ট খেলুড়ে সব দেশগুলোর বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলা হলেও, এই ফরম্যাটে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে প্রথমবারের মতো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ১৬ বছরে এ পর্যন্ত ১০২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে জিতেছে ৩৪টিতে আর হেরেছে ৬৬ ম্যাচে।

বাকি দুই ম্যাচ পরিত্যক্ত। সবচেয়ে বেশি ম্যাচ টাইগাররা খেলেছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এরপর উইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সমান ১২টি করে। ভারত ও শ্রীলংকার বিপক্ষে ১১টি করে। অন্য দেশগুলোর সঙ্গেও বেশ কয়েকটি ম্যাচে হয়েছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে। তবে, একমাত্র অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই যে চারটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ, তার সব ক’টিই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।

২০০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম সাক্ষাত হয় বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার। এরপর তিন বছর পর আবারও বিশ্বকাপে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি খেলে দু’দল। চার বছর পর মিরপুরে সর্বশেষ বেঙ্গালুরুতে টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া।

সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলা বাংলাদেশ দলে আছেন মাহমুদউল্লাহ, সাকিব, সৌম্য ও মুস্তাফিজ আর অস্ট্রেলিয়া দলের হয়ে সবশেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা আছে বতর্মান দলের মিচেল মার্শ ও অ্যাডাম জাম্পার। তবে, বাংলাদেশ যে চারটি টি-টোয়েন্টি খেলেছে অজিদের বিপক্ষে, তার সব ক’টিই খেলেছেন সাকিব আল হাসান। দুই দলের মুখোমুখি পারফরম্যান্সে সবার ওপরে সুপার সাকিব।

৪ ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৪৩ রান মিস্টার সেভেন্টি ফাইভের। দুই দলের মাঝে সর্বাধিক উইকেট শিকারিও সাকিব আল হাসান। শুধুই টি-টোয়েন্টি না। ওয়ানডে কিংবা টেস্টেও বাংলাদেশের বিপক্ষে নানা অজুহাত দেখিয়ে সিরিজ খেলতে চায় না অজিরা। তবে, এবার টি-টোয়েন্টি সিরিজে ক্যাঙ্গারু বধ করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে মোক্ষম জবাব দেওয়ার উপযুক্ত সময় এসেছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*