অবশেষে ‘আয়নায় মুখ’ দেখার ব্যাখ্যা দিলেন মুশফিক

বিশ্বকাপে ‘আয়নায়’ মুখ দেখা নিয়ে মন্তব্য করে সমালোচিত হয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। সামাজাকি যোগাযোগমাধ্যমেও হয়েছেন ‘ট্রোল’-এর শিকার। বিশ্বকাপে খারাপ পারফর্ম্যান্সের পর পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে বাদ পড়েছেন দেশের অন্যতম সেরা এই ব্যাটার। তারপরও ‘আয়না’ পিছু ছাড়ছে না মুশফিকের। আজ বুধবার এক সাক্ষাৎকারে বিশ্বকাপে বলা কথাটার ব্যাখ্যায় মুশফিক বললেন, ‘বাইরে কথা তো হয়ই।

বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের অনেকের কাছ থেকে জেনেছি যে অনেক কথা হয়েছে। আমরা যেসব কথা বলেছি, সেগুলোর অনেক প্রতিক্রিয়া হয়েছে। আসলে ওই সময়টায় এত চাপের মধ্যে থাকি, বিশ্বকাপ এত বড় ইভেন্ট, সেখানে বাইরে কে কী বলল, সেসব দেখে বা শুনে কিংবা ওসব ধরে রেখে পাল্টা প্রতিক্রয়া দেখানো, ওসব করা কঠিন। ব্যক্তিগতভাবে আমি কখনও করিনি।

আমার কথায় যদি ফিরে আসেন, আসলে আমি ইঙ্গিত দিতে চেয়েছি, মানুষ হিসেবে শুধু আমি নই, জাতি হিসেবে আমরা সবাই নিজেদের একটু আয়নার সামনে দেখতে পারি, সেটা মানুষ হিসেবেই উচিত।’ আজকে আমি খারাপ খেলছি দেখে আমাকে বলবেন, কালকে ভালো খেললে তালি দেবেন, এটা এসবের অংশ নয়। সেদিক থেকে বলেছি।

এখন কেউ যদি এটা ব্যক্তিগতভাবে নিয়ে থাকেন বা অন্যভাবে বলে থাকেন, তাহলে আমি মনে করি আমি যেহেতু ওভাবে বলিনি, সে ক্ষেত্রে কে কী মনে করল, এটায় আমার কিছু করার নেই। তিনি আরো বলেন, ‘আমরা খারাপ করায় মিডিয়া বা দেশের মানুষ, সবারই খারাপ লেগেছে। তবে আপনারাও (মিডিয়া) কিন্তু একটা অংশ। সবারই ব্যর্থতার অংশ এটি। এই উপলব্ধি থাকা উচিত।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*