অবশেষে আফগানিস্তানে মার্কিন মিশন সমাপ্তির ঘোষণা বাইডেনের

আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক মিশন শেষ করার সময় জানিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বৃহস্পতিবার এক ঘোষণায় তিনি বলেন, আগামী ৩১ আগস্ট শেষ হবে মিশন। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

আফগানিস্তানের বাদঘিস প্রদেশের রাজধানী কালা-ই-নাউ দখলে আফগান সেনা ও তালেবানের তুমুল লড়াই চলার মধ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে এমন ঘোষণা এল। আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সব সেনা প্রত্যাহার প্রসঙ্গে মার্কিন জনগণের উদ্দেশে হোয়াইট হাউসে বক্তব্য দেন বাইডেন।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে নিজের সিদ্ধান্তের পক্ষে সাফাই গান তিনি। বাইডেন বলেন, আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনী তার লক্ষ্য অর্জন করেছে। আল-কায়েদার প্রতিষ্ঠাতা ওসামা বিন লাদেনকে হ’ত্যা করা হয়েছে। আল-কায়েদাকে দুর্বল করে দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে আরও হা’মলা চালানোর বিষয়টি প্রতিহত করা হয়েছে। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে হা’মলা চালিয়েছিল আল-কায়েদা। সেই হা’মলার জেরে স’ন্ত্রা’সবিরোধী যু’দ্ধের (ওয়া’র অন টেরর) নামে যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ২০ বছর আগে আফগানিস্তানে সামরিক অভিযানে যায়।

এই যু’দ্ধে সফলতার দাবি করছে যুক্তরাষ্ট্র। তাই আফগান যু’দ্ধের সমাপ্তি টানছে দেশটি। এ প্রসঙ্গে বাইডেন বলেন, ‘আমরা আমেরিকার দীর্ঘতম যু’দ্ধের অবসান ঘটাচ্ছি।’প্রসঙ্গত, ২০০১ সালে হোয়াইট হাউসে দাঁড়িয়ে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ আফগান যু’দ্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন।

বুশের আফগান যু’দ্ধ ঘোষণার সময় বাইডেন সিনেটের প্রভাবশালী সদস্য ছিলেন। তিনি তখন একজন সিনেটর হিসেবে বুশের আফগান যু’দ্ধের অনুমোদন দেন। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার দুই মেয়াদকালে ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন বাইডেন।

ওবামা চেষ্টা করেও আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারে সফল হননি। ওবামার পর ডোনাল্ড ট্রাম্পও আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। আফগান যু’দ্ধ দেখা চতুর্থ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*